Home / International / যে কারনে ভারতে আসতে চান মালালা ইউসুফজাই…

যে কারনে ভারতে আসতে চান মালালা ইউসুফজাই…

ভারতীয় মেয়েদের জন্যে কাজ করতে চান মালালা ইউসুফজাই। এজন্য ভারতে আসতে চান তিনি। শুধু তাই নয়, ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠিত করতে চান এই পাক তরুণী। এজন্য পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতে চান মালালা।

সম্প্রতি সুইজারল্যান্ডের দাভোসে আন্তর্জাতিক অর্থনৈতিক সম্মেলনে যোগ দিতে এসে এমনটাই জানালেন শান্তিতে নোবেলজয়ী পাক তরুণী।

২০১২ সালে স্কুল যাওয়ার ‘অপরাধে’ পাকিস্তানের এই কিশোরীর মাথায় গুলি করে তালিবান জঙ্গিরা। কিন্তু তারপরও তাকে দমানো যায়নি। মালালা এখন অক্সফোর্ডের ছাত্রী। জাতিসংঘের শান্তিদূত। তালিবান জঙ্গিদের অত্যাচারের বিরুদ্ধে, মেয়েদের অধিকার আদায়ের জন্য গুলমকাই নামে ব্লগ লেখেন। বিশ্ব জুড়ে মেয়েদের শিক্ষার জন্য অর্থ সংগ্রহ করতে ‘মালালা ফান্ড’ তৈরি করেছেন। দাভোসের মঞ্চে এসে সেই তহবিলের জন্য সাহায্য চাইলেন।

এসময় ভারতের মেয়েদের জন্যে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেন মালালা ইউসুফজাই। এজন্য ভারতে আসতে চান তিনি। মালালার মতে, ভারত আর পাকিস্তানের মেয়েদের সমস্যা মোটামুটি একই। সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলে সেই সমস্ত সমস্যা বিশদে জানা ও সমাধানের পথ খোঁজার ইচ্ছা রয়েছে তার।

মালালা আরো বলেন, ভারত থেকে প্রচুর চিঠি পান। ছোট্ট একটি মেয়ের লেখা চিঠির কথা শুনিয়েছেন তিনি। মালালা বলেন, ‘মেয়েটি লেখেছে, সে বড় হয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী হতে চায়। আর আমি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। এরপর দু’জনে আলোচনা করে দু’দেশেই শান্তি নিয়ে আসব।’ ভবিষ্যত প্রজন্মের মেয়েদের দেশকে নেতৃত্ব দেওয়ার ব্যাপারে এই আগ্রহ ভাল লেগেছে মালালার।

ভারতীয় সিনেমা দেখে এ দেশের অনেক কিছু জেনেছেন তিনি। হিন্দিও শিখেছেন। বিশ্বাস করেন, পরস্পরের সংস্কৃতি ও মূল্যবোধ থেকে দু’দেশেরই শেখার আছে। মালালা বলেন, ‘ভারত আর পাকিস্তানের ভবিষ্যৎ নিয়ে কথা বলতে হলে দু’দেশের মেয়েদের গুরুত্ব দিতে হবে। ওরাই ভবিষ্যৎ। লক্ষ লক্ষ মেয়েকে শিক্ষার থেকে দূরে রেখে কী ভাবে সুন্দর ভবিষ্যত সম্ভব? প্রতিটি মেয়ের পড়াশোনা এক সুতোয় গাঁথা। এ ভাবেই মেয়েদের ক্ষমতায়ন সম্ভব।’

 

Check Also

“ব্লু-মুন” দেখার টান টান অপেক্ষা! চন্দ্রগ্রহণ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকাল…

বিশ্ববাসী প্রত্যক্ষ করতে যাচ্ছে এক বিরল মহাজাগতিক দৃশ্য। এবার একই সঙ্গে দেখা যবে পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ, …

Leave a Reply

Your email address will not be published.